মাগুরায় গৃহবধূকে নির্যাতন: কামরুজ্জামান সহ ৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা

মাগুরা সদর

 মাগুরা সংবাদঃ

পাঁচ লাখ টাকা যৌতুকের দাবিতে তাসনিম খাতুন নামে এক গৃহবধূকে নির্যাতনের অভিযোগে বুধবার যশোর কোতয়ালি থানায় মামলা হয়েছে। গৃহবধূর স্বামী, শ্বশুর ও শাশুড়িকে আসামি করে মামলাটি করেছেন নির্যাতিতার চাচাতো ভাই শেখ মারুক শেহাব। আসামিরা হলেন, মাগুরা সদর উপজেলার কুশাবাড়িয়া গ্রামের বাসিন্দা কামরুজ্জামান, তার পিতা খায়রুজ্জামান ও মা রেহেনা খাতুন। যশোর শহরের পশ্চিম বারান্দীপাড়া কদমতলার শেখ শহিদুল্লাহর ছেলে শেখ মারুফ শেহাবের অভিযোগ, ৬ বছর আগে তার চাচাতো বোন তাসনিম খাতুনের সাথে কামরুজ্জামানের বিয়ে হয়। দাম্পত্য জীবনে তাদের উমায়ের (৪) ও ওয়াসিফা (২) নামে দুটি সন্তান রয়েছে। কিন্তু বিয়ের পর থেকেই কামরুজ্জামান তার পিতা ও মায়ের প্রত্যক্ষ ইন্ধনে ৫ লাখ টাকা যৌতুকের দাবিতে বিভিন্ন সময় তাসনিম খাতুনকে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করে আসছেন। প্রায় দু’মাস আগে উল্লিখিতরা শিশু সন্তানদের রেখে দিয়ে তাসমিন খাতুনকে যৌতুকের টাকা নিয়ে আসার জন্য যশোরে পিতার বাড়িতে পাঠিয়ে দেন। এ ঘটনার পর গত ১৬ জুন কামরুজ্জামান, তার পিতা খায়রুজ্জামান ও মা রেহেনা খাতুন যশোরে তাদের বাড়িতে আসেন। এ সময় যৌতুকের টাকা দিতে অস্বীকার করলে দু’পক্ষের মধ্যে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে স্বামী, শ্বশুর ও শাশুড়ি ক্ষিপ্ত হয়ে তাসনিম খাতুনকে মারধর করেন। তারা সাফ জানিয়ে দেন যৌতুকের ৫ লাখ টাকা না পেলে তারা তাসনিম খাতুনকে মাগুরায় নিয়ে যাবেন না। পরে তারা চলে যান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *