মাগুরাসহ চার জেলায় সম্মেলনের তারিখ নির্ধারণে আওয়ামী লীগের চিঠি

মাগুরা সদর রাজনীতি

মাগুরা সংবাদ:

জেলা আওয়ামী লীগ কাউন্সিলের তারিখ নির্ধারণ এবং উপজেলার কাউন্সিল সম্পন্ন ও পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনের একটি চিঠি খুলনা বিভাগের চার জেলা বরাবর ইস্যু করা হয়েছে। জেলাগুলো হলো- মাগুরা, ঝিনাইদহ, মেহেরপুর ও চুয়াডাঙ্গা। এই চার জেলার ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনের তারিখ নির্ধারণে আওয়ামী লীগের উপ-দফতর সম্পাদক সায়েম খানের সই করা চিঠিগুলো খুলনা বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতাদের নির্দেশনায় বৃহস্পতিবার (১০ ফেব্রুয়ারি) জেলা বরাবর পাঠানো হয়েছে বলে দলীয় সূত্র নিশ্চিত করেছে।

চিঠিতে বলা হয়েছে, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারির মধ্যে জেলা শাখাসহ উল্লেখিত উপজেলা, পৌর শাখাগুলোর কাউন্সিলের তারিখ নির্ধারণের সাংগঠনিক নির্দেশনা অবহিত করা হচ্ছে। যেসব শাখার কাউন্সিল সম্পন্ন হয়েছে অথচ পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন হয়নি, সেগুলোর কমিটি পূর্ণাঙ্গ করে আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারির মধ্যে জেলা আওয়ামী লীগের কাছে ও কেন্দ্রীয় দফতর বিভাগে জমা দেওয়ার জন্য অনুরোধ করা হচ্ছে। বিষয়টি খুব গুরুত্বপূর্ণ উল্লেখ করে সাংগঠনিক নির্দেশনা অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য অনুরোধ করা হয় চিঠিতে।

প্রসঙ্গত, গত ৯ ফেব্রুয়ারি দুপুরে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে খুলনা বিভাগীয় টিমের সাংগঠনিক দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতাদের এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী এই চিঠি ইস্যু করা হয়েছে।

চিঠিতে আরও উল্লেখ করা হয়েছে, কেন্দ্রীয় নেতাদের উপস্থিতিতে অনুষ্ঠিত চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের বিশেষ বর্ধিত সভায় উপস্থিত নেতৃবৃন্দের মতামতের ভিত্তিতে আগামী ২৫ ফেব্রুয়ারি চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক কাউন্সিলের তারিখ নির্ধারিত ছিল। একইসঙ্গে জেলার অন্তর্গত মেয়াদ উত্তীর্ণ সব উপজেলা ও পৌর শাখার কাউন্সিলের তারিখও নির্ধারণ করা হয়। তার মধ্যে গত ২০ ও ২১ ডিসেম্বর যথাক্রমে আলমডাঙ্গা ও জীবননগর উপজেলা আওয়ামী লীগ; ২৮ ডিসেম্বর দামুড়হুদা উপজেলা আওয়ামী লীগ, ৬ জানুয়ারি ২০২২ চুয়াডাঙ্গা পৌর ও ৭ জানুয়ারি চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের কাউন্সিলের তারিখ নির্ধারণ করা হয়। কিন্তু প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বৃদ্ধির কারণে কর্মসূচি স্থগিত রাখা হয়। তবে এর আগে, নির্ধারিত সময়ে আলমডাঙ্গা, দর্শনা ও জীবননগর পৌর শাখার কাউন্সিল সম্পন্ন হয়।

একইভাবে অন্য তিন জেলা বরাবরও সাংগঠনিক নির্দেশনা জারি করে চিঠি ইস্যু করা হয়েছে বলে সূত্র জানিয়েছে। এদিকে, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক (খুলনা বিভাগ) বিএম মোজাম্মেল হক  বিষয়টি নিশ্চিত করেছের। তিনি বলেন, ‘বিভাগীয় সভার সিদ্ধান্তের আলোকে আমরা চার জেলা বরাবর চিঠি ইস্যু করেছি।’

উল্লেখ্য, গত মঙ্গলবার গণভবনে অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সভায়ও আগামী দ্বাদশ জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে সংগঠনকে তৃণমূল থেকে সাংগঠনিকভাবে শক্তিশালী করতে মেয়াদ উত্তীর্ণ শাখাগুলোর সম্মেলন দ্রুত সম্পন্ন করার নির্দেশ দিয়েছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তার নির্দেশের পরিপ্রেক্ষিতে দেশব্যাপী আওয়ামী লীগের ওয়ার্ড, থানা, উপজেলা ও জেলা কমিটির সম্মেলন অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *