পটুয়াখালী নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতায় প্রথম ও দ্বিতীয় স্থান অর্জন করেছে মাগুরা

বাংলাদেশ মহম্মদপুর মাগুরা সদর

মাগুরা সংবাদ:

পটুয়াখালী জেলা হানাদারমুক্ত হয় ১৯৭১ সালের ৮ ডিসেম্বর। এ উপলক্ষে জেলা প্রশাসনের আয়োজনে  বুধবার বিকেল সাড়ে ৩টায় লাউকাঠি নদীতে বর্ণাঢ্য নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বিভিন্ন ধরনের নৌকা আর নানা রঙের পোশাক পরে মোট ৬টি দল এ প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে।

এ নৌকা বাইচ দেখতে লাউকাঠি নদীর দুই পাড়ে অসংখ্য লোক ভিড় জমায়। দূর-দুরান্ত থেকে ট্রলার নিয়ে আসেন নৌকা বাইচ উপভোগ করতে। এ নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতা দেখতে নারীদের উপস্থিতিও ছিল চোখে পড়ার মতো।

এ নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতায় প্রথম হয়েছে মাগুরা টাইগার, দ্বিতীয় হয়েছে মাগুরার মোহাম্মদপুরের মায়ের দোয়া এবং তৃতীয় হয়েছে টুঙ্গিপাড়ার মা শিতলা। স্থানীয় সংসদ সদস্য ও সাবেক ধর্ম প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট মো. শাহজাহান মিয়া বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন। পুরস্কার হিসেবে প্রথম স্থান অর্জনকারীকে মোটরসাইকেল, দ্বিতীয় স্থান অর্জনকারীকে এলইডি টেলিভিশন ও তৃতীয় স্থান অর্জনকারীকে ফ্রিজ দেওয়া হয়।

এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আ. স. ম ফিরোজ এমপি, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ কামাল হোসেন, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ-পিপিএম, সিভিল সার্জন মোহাম্মদ জাহাংগীর আলম শিপন, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি কাজী আলমগীর, সাধারণ সম্পাদক ভিপি আব্দুল মান্নান, পৌর মেয়র মহিউদ্দিন আহমেদ, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট মো. গোলাম সরোয়ার প্রমুখ।

এর আগে পটুয়াখালী হানাদার মুক্ত দিবসে তেমন কোন আয়োজন না থাকলেও এবারই প্রথম এমন আয়োজন করে জেলা প্রশাসন। নৌকা বাইচের পাশাপাশি শহরের গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনায় আলোকসজ্জা করা হয়। ভবিষ্যতেও এই ধারা অব্যাহত থাকবে বলে উল্লেখ করেন জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *