‘করোনায় মাগুরা পুলিশ প্রমাণ করেছে তারা জনগণের খুব কাছের বন্ধু’

মাগুরা সদর

মাগুরা সংবাদ:

করোনা পরিস্থিতিতে মাগুরায় শুধু অপরাধ নিয়ন্ত্রণ নয়, মানুষের হৃদয়ও জয় করেছে পুলিশ। ১২ জন পুলিশ সদস্য করোনা আক্রান্ত হলেও একটুও থেমে থাকেনি মাগুরা পুলিশ-এমনই অভিমত ব্যক্ত করেছেন মাগুরার পুলিশ সুপার মুহাম্মদ রেজোয়ান।

করোনা পরিস্থিতি নিয়ে এক গণমাধ্যমে আলাপচারিতায় পিপিএম পদকধারী জেলা পুলিশ সুপার খান মুহাম্মদ রেজোয়ান বলেন, করোনা পরিস্থিতিতে মাগুরা পুলিশ বাহিনী একদিকে যেমন জনগণের নিরাপত্তায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার জন্য সব সময় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করেছে, একইসঙ্গে নিম্ন আয়ের মানুষের পাশে বন্ধু হয়ে দাঁড়িয়েছে। শুধু তাই নয়, মাগুরা পুলিশের অনেক সদস্য নিজের বোনাসের টাকায় খাবার ও উপহার সামগ্রীর ব্যবস্থা করেছে নিম্ন আয়ের মানুষের জন্য। করোনা আক্রান্তদের বাড়িতে পৌঁছে দিয়েছে পুলিশের উপহার।

পুলিশ সুপার জানান, কর্তব্য পালন করতে গিয়ে মাগুরায় মোট ১২ পুলিশ সদস্য করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। এরইমধ্যে আটজন সুস্থ হয়েছেন। তারা কাজে যোগদান করতে এক মুহূর্তও দেরি করেননি। গর্ব করার বিষয়, ১২ জন করোনা আক্রান্ত হলেও আতঙ্কে কখনও কাজে অবহেলা করেনি কোনও পুলিশ সদস্য।

তিনি বলেন, করোনা পরিস্থিতিতে অনেকেই কাজ হারিয়েছেন। এ অবস্থায় আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি হওয়া স্বাভাবিক। সুখের বিষয় এই যে, মাগুরায় অপরাধ নিয়ন্ত্রণেই আছে বলা যায়। গত মার্চ থেকে এ পর্যন্ত একটি ডাকাতির ঘটনা ছাড়া বড় কোনও অপরাধ মাগুরায় ঘটেনি।

খান মুহাম্মদ রেজোয়ান বলেন, এই পাঁচ মাসে মাগুরা পুলিশ ত্রাণ, উপহার বিতরণসহ যেকোনও বিপদে মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে প্রমাণ করতে পেরেছে পুলিশ জনগণের খুব কাছের বন্ধু।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *