মাগুরায় ধর্ষণ মামলায় ছাত্রলীগ নেতাকে ধরতে গিয়ে মার খেলেন দুই এসআই

মাগুরা সদর

মাগুরা সংবাদঃ

 

মাগুরায় ধর্ষণ মামলার এক আসামিকে ধরতে গিয়ে মাগুরা সদর থানার দুই উপপরিদর্শক (এসআই) মারধরের শিকার হয়েছেন।

শনিবার দুপুরে মাগুরা শহরের আদর্শ কলেজের পেছনের এ ঘটনা ঘটে ।  আহত দুই পুলিশ কর্মকর্তা মাগুরা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন।

ধরতে যাওয়া আসামি রুবেল ওরফে ঝরু মাগুরা আদর্শ কলেজে অনার্স দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র। তিনি শহরের দোয়ারপাড় কারিকর পাড়ার জামির মোল্যার ছেলে। পুলিশ বলছে, রুবেল আদর্শ কলেজ ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক। তবে ছাত্রলীগ বলছে রুবেল ছাত্রলীগের কেউ নয়।

সদর থানা পুলিশের এসআই পারভেজ আহমেদ বলেন, সদর থানার একটি ধর্ষণ মামলার আসামি রুবেল চায়ের দোকানে অবস্থান করছিল; খবর পেয়ে আমি ও সহকর্মী এসআই মাছুম তাকে আটক করতে যাই।

সেখানে পৌঁছে এসআই মাসুম প্রথমে তাকে ডেকে কথা বলতে গেলে রুবেল তার সঙ্গে অশালীন আচরণ করেন। এ সময় এসআই মাসুম তাকে গ্রেপ্তার করতে এগিয়ে গেলে রুবেল পাশের ধানক্ষেতে কাদার মধ্যে দৌঁড় দেন। মাসুম তাকে ধাওয়া করে ওই ক্ষেতের মধ্যে গেলে রুবেল তাকে মারধর করেন।

পারভেজ আরও জানান, এ সময় তিনি নিজে ধানক্ষেতে নেমে রুবেলকে প্রতিহত করতে যান। এ সময় রুবেল একইভাবে তাকেও একের পর এক কিল, ঘুষি, লাথি মেরে আহত করেন। এ পর্যায়ে খবর পেয়ে সদর থানার একাধিক পুলিশ সদস্য ও কর্মকর্তা সেখানে উপস্থিত হয়ে রুবেলকে হাতকড়া পরিয়ে সদর থানায় নিয়ে আসে। অন্যদিকে তারা দুজন মাগুরা সদর হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা নেন।

তিনি আরও জানান, কাদাপানির মধ্যে ওয়াকিটকি, হ্যান্ডকাপ, মোবাইল ও অস্ত্র, রক্ষা করতে গিয়ে তারা দুই এসআই এ সময় বেশ বিপাকে পড়েন। ঘটনার সময় ছাত্রলীগের শতাধিক নেতা-কর্মী তাদের ঘেরাও করে ফেলেন। পরে তারা রুবেল ধর্ষণ মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত আসামি বলে তাদের জানালে, ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীরা সেখান থেকে সরে যান।

 

 

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *