গোয়ালন্দে সড়ক দুর্ঘটনায় মাগুরার সাহেব আলীর মৃত্যু

মহম্মদপুর মাগুরা সদর

মাগুরা সংবাদ:

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে বাসের ধাক্কায় মো: সাহেব আলী (২৮) নামে একজন সেনাবাহিনীর সদস্য নিহত হয়েছেন। নিহত সাহেব আলী মাগুরার মোহাম্মদপুর থানার মোহাম্মদপুর ইউপির পোরাইল গ্রামের গফফার মোল্লার ছেলে এবং ঢাকার সাভার সেনানিবাসের সেনা সদস্য। তার আইডি নম্বর-২২০৬৫৭৩।

শনিবার (৪জুন) রাজবাড়ীর ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের গোয়ালন্দ ফায়ার সার্ভিস স্টেশন এর সামনে পৌনে ১১টার দিকে দ্রুতগতির একটি বাস তাকে চাপা দেয়।

নিহত সেনা সদস্যের ভাবি ডলি আক্তার বলেন, সাহেব আলী তার নিজ বাড়ী থেকে সাভার কর্মস্থলে মোটরসাইকেলে যাচ্ছিলেন। পরে আমাদেরকে ফোন করে জানানো হয় তিনি দুর্ঘটনায় মারা গিয়েছেন। এ ঘটনা জানার পর আমাদের বাসার অন্যান্য সদস্য গোয়ালন্দে রওনা হয়েছেন। তিনি আরো জানান নিহত সেনা সদস্যের সাহেব আলীর একটি মেয়ে সন্তান রয়েছে।

গোয়ালন্দ ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্স ষ্টেশনের গাড়ি চালক মুরাদ খান জানান, বেলা পৌনে ১১টার দিকে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের গোয়ালন্দ ফিডমিল ও গোয়ালন্দ ফায়ার সার্ভিস ষ্টেশনের এর মাঝামাঝি স্থানে একটা বিকট শব্দ হয়। দ্রুত অফিস কক্ষ থেকে আমরা সকলে বের হয়ে দেখি একজন লোক রক্তত্ব জখম অবস্থায় সড়কে পড়ে আছে। তার বাম পা সহ শরীরের বিভিন্ন অঙ্গ থেতলে গেছে। দুর্ঘটনার স্থল থেকে প্রায় ২০০ গজ দূরে মোটরসাইকেলটি টেনে হিঁচরে নিয়ে গেছে। এতে তার মাথায় থাকা হেলমেটসহ গাড়িটি দুমড়েমুচড়ে যায়। পরে দ্রুত তাকে উদ্ধার করে গোয়ালন্দ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন।

আহ্লাদিপুর হাইওয়ে থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. জিল্লুর রহমান বলেন, ক্ষতিগ্রস্ত গাড়িটি উদ্ধার করে আমরা থানায় নিয়ে যাচ্ছি। ঘাতক বাসটিকে আটকের জন্য বিভিন্ন পয়েন্টে খবর দেওয়া হয়েছে। এছাড়া লাশটি উদ্ধার করে পরিবারের সাথে যোগাযোগ করে পরবর্তী আইনগত পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে।

তার কাছ থেকে নগদ ৫ হাজার ৭৩৫ টাকা, একটি স্মার্ট ফোন, একটি বার্টন ফোন, ৫টি বিভিন্ন পরিচয়পত্র, ট্রাস্ট ব্যাংকের একটি কার্ড, একটি রেশন কার্ড পাওয়া যায়। সে লাল রঙের ১১০ সিসির ডিসকভার মোটরসাইকেল (মাগুরা হ-১২-৪৯২৯) চালিয়ে বাড়ি থেকে সাভার সেনানিবাসের কর্মস্থলের দিকে যাচ্ছিলেন। ঢাকা থেকে আসা খুলনাগামী একটি এসি বাস তাকে চাপা দিয়ে যায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *