মোবাইল ব্যাংকিং প্রতারণা মামলায় মাগুরা শ্রীপুরের ৩ জন গ্রেফতার

মাগুরা সদর শ্রীপুর

মাগুরা সংবাদ:

বিকাশ মোবাইল ব্যাংকিং এ প্রতারণা করে লক্ষ-লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার ঘটনায় খুলনার পাইকগাছা থানা পুলিশের হাতে গ্রেফতারকৃত ৩ প্রতারক চাঞ্চল্যকর তথ্য দিয়েছে।
ইতোমধ্যে প্রতারনার স্বীকার পৌরসভা সরল গ্রামের বাসিন্দা ঈগল পরিবহনের সুপারভাইজার মিল্টন শিকদার থানায় মামলা করেছেন,যার নং-১০।

গত ৩০ মার্চ পৌরসভার আকবর স্টোর বিকাশের দোকান থেকে মিল্টন তার মেয়ে জোহরার কাছে ২৪ হাজার ৪’শ ৯৩ টাকা পাঠায়। এ সময় ইউসুফ ঐ দোকান থেকে সুকৌশলে গ্রাহকের মোবাইল নং অন্য সহযোগী মোহাম্মদ আলীর কাছে পাঠায়। এরা জোহরার কাছে মোবাইল করে বলেন, আপনার বিকাশ নম্বর ভুল আছে তা ঠিক করার জন্য দ্রুত পিন নম্বর চায়।

জোহরাকে বিজি রেখে কথা বলতে-বলতে কৌশলে তার পিন নম্বর নিয়ে সব টাকা অন্য মোবাইল নম্বরে হ্যাক করে নেয়। যা গ্রেফতারকৃত ইউসুফ আলী (২২) আদালতে ১৬৪ ধারার জবানবন্দিতে দোষ স্বীকার করে অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দেবার কথা বলেছেন বলে মামলা তদন্ত কর্মকর্তা এসআই মোঃ ইমরান হোসেন জানিয়েছেন। ধৃত ইউসুফ মাগুরার শ্রীপুরের বরিশাট গ্রামের ইস্কেন্দার শেখের ছেলে। তাকে চলতি ৬ এপ্রিল উপজেলা খাদ্যগুদাম সংলগ্ন আকবর স্টোর বিকাশের দোকান থেকে আটক করা হয়।

পুলিশ জানিয়েছে, সে বিভিন্ন এলাকার বিকাশ মোবাইল ব্যাংকিং এর দোকানে গিয়ে কৌশলে বিকাশের টাকা লেন-দেনের ছবি মোবাইলে তুলে প্রতারক চক্রের সদস্য মোহাম্মদ শেখ( ২৫),শোয়েব শেখ (২৫),ইমরান শেখ (২৮) সহ অন্যদের কাছে পাঠাতো। এদের বাড়ী মাগুরা শ্রীপুরের বরিশাট গ্রামে। আর প্রতারক চক্রের গডফাদাররা দোকান মালিক সেজে গ্রাহকের মোবাইল নম্বর ভুল আছে বলে ফোন দিত। অন্য প্রতারক সদস্য গ্রাহককে মোবাইলে ব্যস্ত রেখে কৌশলে তার পিন নম্বর নিয়ে মুহুর্তেই সব টাকা অন্য মোবাইল নম্বরে পাঠিয়ে দিত।

এ মামলায় পুলিশ এ পর্যন্ত ইউসুফ সহ মোহাম্মদ আলী ও শোয়েব শেখকে গ্রেফতার করে।

জিজ্ঞাসাবাদে পুলিশ প্রতারনার সম্পর্কে বহু চাঞ্চল্যকর তথ্য পেযেছে। এ প্রতারক চক্রের সাথে এ এলাকার বা দেশের অন্যন্য অঞ্চলে কারা-কারা জড়িত তা প্রযুক্তির মাধ্যমে নাম-ঠিকানা পুলিশ উদ্ধারের জোর চেষ্টা করছে।
এ বিষয়ে ওসি মোঃ জিয়াউর রহমান বলেন, প্রতারক এ চক্রটি দীর্ঘ দিন ধরে বিকাশের মাধ্যমে প্রতারণা করে গ্রাহকের লক্ষ-লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। এ নিয়ে থানায জিডি ও অভিযোগ হয়েছে।ইতোমধ্যে এ চক্রের ৩ জনকে গ্রেফতার করা হলে তারা আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *