৬ ঘন্টা নির্যাতনের পর উদ্ধার মহম্মদপুরের মঞ্জুর,পুলিশের উপর হামলা,আটক ৩

মহম্মদপুর

 

মাগুরা সংবাদ:

ফরিদপুরের বোয়ালমারীতে পিটুনিতে আহত কথিত চোরকে উদ্ধার করতে গিয়ে জনতার রোষানলে পড়ে পাঁচ পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। পরে অতিরিক্ত পুলিশ গিয়ে আহত পুলিশ সদস্য, পিটুনির শিকার কথিত ওই চোর এবং এ ঘটনার সাথে জড়িত এলাকার তিনজনকে আটক করে বোয়ালমারী থানায় নিয়ে এসেছে।

মঙ্গলবার (১২ অক্টোবর) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে বোয়ালমারী উপজেলার রূপপাত ইউনিয়নের কাটাগড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। মঙ্গলবার রাতে এ ঘটনায় এটিএসআই সালাউদ্দিন বাদি হয়ে কাটাগড় গ্রামের বাসিন্দা ওমর খাকে (৪৫) প্রধান আসামি করে ১৫ জনের নামে মামলা করেছেন। মামলা নম্বর ১৫।

ওই এলাকার বাসিন্দাদের সুত্রে জানা গেছে কাটাঘর গ্রামের শের আলীর একটি রিক্সা ভ্যান চুরি হয়। ওই ভ্যানটি খোঁজ করতে করতে পাশের সালথা উপজেলার সোনাপুর গ্রাম থেকে মাগুরার মোহাম্মদপুর এলাকার মঞ্জুর মোল্লা (৪০) নামে এক ব্যাক্তিকে ধরে বাড়িতে নিয়ে আসে শের আলীর পরিবারের সদস্যরা ।

সোমবার সন্ধ্যা ৭টা থেকে মঙ্গলবার দুপুর ১২টা পর্যন্ত মঞ্জুরকে ধরে নির্যাতন করা হচ্ছে এ খবর পেয়ে বোয়ালমারীর ডহন নগর পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের এক কর্মকর্তা, তিন কনস্টেবল ও গাড়ির চালকসহ মোট পাঁচজন ঘটনাস্থলে যান। ওই সময় এলাকাবাসী পুলিশের উপর হামলা করে।এ ঘটনায় ডহন নগর পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের এটিএসআই মো. সালাউদ্দিন, কনস্টেবল মো. হাবিব, মো. জাফর, মো. মাসুদ ও গাড়ি চালক মো. সবুজ আহত হন।ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ডহন নগর পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মো. মোক্তার হোসেন জানান, পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছানোর সাথে সাথে জনতা তাদের উপর হামলা চালায়। তিনি বলেন, এর ফলে পুলিশ সদস্যরা আহত হন। পরে বোয়ালমারী থানা থেকে অতিরিক্ত পুলিশ গিয়ে কথিত ভ্যান চোরকে উদ্ধার করে। তিনি বলেন, এ ঘটনার সাথে জড়িত ওই এলাকার তিন ব্যাক্তিকে আটক করা হয়েছে।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ডহরনগর পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের এসআই তোতা বলেন, মামলার তিন আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকি আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *