মাগুরায় ১০ প্যাথেড্রিন ইনজেকশনসহ আটক ২

মাগুরা সদর

মাগুরা সংবাদ:

 

সীমান্ত দিয়ে ভারত থেকে নতুন করে ঢুকছে ব্যাথানাশক ইনজেকশন প্যাথেড্রিন। এটি মাদকাশক্তদের নেশার উপকরণ হিসেবে ব্যবহৃত হয়।

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর যে ১০ ক্যাটাগরির মাদক মারাত্মক ঝুঁকিপূর্ণ বলে মনে করে এর মধ্যে পেথিড্রিন ইনজেকশন অন্যতম। আজ বুধবার বেলা সাড়ে ১২ টায় মাগুরা সদরে হাসপাতাল পাড়ার দাউদ শরীফের বাসার সামনে থেকে ৯টি প্যাথেড্রিন ইনজেকশনসহ নিউ আলেয়া ক্লিনিকের ম্যানেজার হাসান (২৬) নামে এক মাদক ব্যবসায়ীকে মাগুরা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর গ্রেফতার করেছে।। এ সময় অনুপ দাস (৩২) নামের এক মাদকসেবিকে ১টি প্যাথেড্রিন ইনজেকশনসহ গ্রেফতার করা হয়। অনুপ দাস মাগুরা সদরের পশু হাসপাতাল পাড়া এলাকার অলোক দাসের ছেলে।

মাগুরা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের পরিদর্শক আব্দুর রহিম জানান,প্যাথেড্রিন ইনজেকশন বিক্রেতা হাসানের বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা রুজু করা হয়েছে এবং ভ্রাম্যমান আদালত কর্তৃক অলোক দাসকে ৩ মাসের কারাদন্ড দেওয়া হয়েছে । উল্লেখ্য সম্প্রতি মাগুরা জেলায়  মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের সাঁড়াশি অভিযানের ফলে মাগুরা সদর হাসপাতালের আশেপাশে  নিষিদ্ধ ইনজেকশন বিক্রি অনেকাংশে বন্ধ হয়ে গেছে। আব্দুর রহিম আরো জানান নিষিদ্ধ মাদকের বিরুদ্ধে আমাদের কঠোর অভিযান অব্যাহত থাকবে ও সদর হাসপাতালে আশেপাশে মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত ফার্মেসীগুলোর প্রতি আমাদের বিশেষ নজর রয়েছে।

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *