ঠিকাদার কারাগারে থাকায় বন্ধ মাগুরা-কুষ্টিয়া জিকে সড়কের নির্মাণকাজ

বাংলাদেশ

 

মাগুরা সংবাদ :

প্রায় তিন বছর ধরে বেহাল মাগুরা-কুষ্টিয়া জিকে সড়কের ৪৫ কিলোমিটার। ৩০ কিলোমিটার সড়ক সংস্কার করা প্রয়োজন। সড়কের ১৫ দশমিক ৬ কিলোমিটার ব্যবহারের একেবারেই অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। এলজিইডির তত্ত্বাবধানে এ অংশের পুনর্নির্মাণের উদ্যোগ নেয়া হয়। এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট ব্যাংকের (এডিবি) সহায়তায় সড়ক পুনর্নির্মাণে দরপত্র আহ্বান শেষে কার্যাদেশ দেয়া হয় এক বছর আগে। চলতি বছরের মে মাসে কাজ শেষ করার কথা থাকলেও তা এখনো শুরুই করা হয়নি। কার্যাদেশ পাওয়া ঠিকাদার কারাগারে থাকায় কাজ থেমে আছে বলে জানা গেছে। স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি) সূত্রে জানা গেছে, এলজিইডির তত্ত্বাবধানে দরপত্রের মাধ্যমে সড়কটি পুনর্নির্মাণের কাজ পায় রাফিয়া কনস্ট্রাকশন ও এমএম বিল্ডার্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ার্স লিমিটেড। এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট ব্যাংকের (এডিবি) অর্থায়নে প্রাক্কলিত ব্যয় ধরা হয় ৩০ কোটি ৯৫ লাখ টাকা। ২০১৯ সালের ৩০ ডিসেম্বর কাজ শুরু করার কথা ছিল। কাজ শেষ করার কথা ছিল চলতি বছরের ৩১ মে। এখনো কাজ শুরুই করতে পারেনি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান দুটি। করোনা মহামারীতে অচলাবস্থা ও একটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের অর্থ পাচারের মামলায় গ্রেফতার হওয়ায় কাজ বন্ধ হয়ে যায়। স্থানীয়রা জানায়, বেহাল সড়কে প্রতিদিনই ঝুঁকি নিয়ে যাতায়াত করতে হচ্ছে। সংস্কার ও ঠিক সময় পুনর্নির্মাণ না করায় সড়কে বড় আকারের গর্ত তৈরি হয়েছে। এতে প্রায়ই ঘটছে দুর্ঘটনা। এলজিইডি সূত্র জানায়, বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড এ সড়কের মালিক হলেও এলজিইডির উদ্যোগে সড়কটি প্রথম পাকাকরণের আওতায় আসে ২০০৯ সালে। পাকাকরণের পর থেকে দীর্ঘ ১১ বছর সড়কের সংস্কার করা হয়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *