শীর্ষ কর্মকর্তাদের নাম ভাঙিয়ে কোটি টাকা বানিজ্য, আটক মাগুরার এক মুদি দোকানদার

মাগুরা সদর

মাগুরা সংবাদ:

কখনো তিনি প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের কর্মী, কখনোবা প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টার ব্যক্তিগত সহকারী। সরকারি শীর্ষ কর্মকর্তাদের এমন নানা ভুয়া পরিচয় দিয়ে গত ১০ বছরে শত শত মানুষের টাকা আত্মসাৎ করেছেন মাগুরার এক মুদি দোকানদার। হয়েছেন কোটিপতি।

অষ্টম শ্রেণি পাশ প্রিন্স মোল্ল্যা। মাগুরা চালাতেন মুদি দোকান। রাজধানীতে আসেন ২০১০ সালে। নাম পাল্টে হন শাওন আহমেদ প্রিন্স। নিজের দুলাভাইয়ের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এক অসাধু কর্মচারীর সাথে মিলে ফাঁদ পাতা শুরু করেন উপদেষ্টার সহকারী। থাকতো প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের ঠিকানা এবং ফোন নম্বরও। 

করোনাকালে সরকারি প্রণোদনা পেতে তার হাতে ৫ লাখ টাকা দিয়েছেন সুমন নামে এক ঠিকাদার। এরপর থেকেই প্রিন্সের পেছন পেছন ঘুরছেন তিনি। একই অবস্থা আরেক যুবক মামুনের। চাকরির আশায় ৩ লাখ টাকা তুলে দিয়েছিলেন। এখন সেই আশায় গুড়েবালি। প্রিন্সের এমন প্রতারণার শিকার হয়েছেন ঢাকা, মাগুরা, ফরিদপুরসহ দেশের বিভিন্ন স্থানের শত শত মানুষ। 

তবে শেষমেষ আইনের জালে ধরা পড়েছেন এই প্রতারক। জিজ্ঞাসাবাদে জানায়, শুধু প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় নয়, প্রতারণায় উপদেষ্টা-মন্ত্রীদের নামও ব্যবহার করেছেন তিনি।

এখন তার সম্পদের খোঁজে নেমেছে গোয়েন্দা পুলিশ। রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদে আরও চাঞ্চল্যকর তথ্য পাওয়ার আশা তাদের।

 

এই প্রতারকের বিরুদ্ধে ১৩ জন এরই মধ্যে অভিযোগ দিয়েছেন। প্রতারণায় আর কেউ জড়িত আছে কিনা তা জিজ্ঞাসাবাদের মাধ্যমে জানা যাবে বলে জানিয়েছে ডিবি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *