করোনায় পারাপার কম হওয়ায় দূর্ভোগে নবগঙ্গার খেয়াঘাটের মাঝিরা

মাগুরা সদর

মাগুরা সংবাদ:

মতিন রহমান :


করোনা ভাইরাস প্রাদুর্ভাবের কারণে কর্মহীন হয়ে পড়েছে দরিদ্র মানুষ। করোনা ভাইরাসের কারণে সারাদেশ যখন আতংক নিয়ে এরই মধ্যে আবার হয়ে গেলো আম্পান ঝড়। এতে আরো বেশি দূর্ভোগ বেড়েছে দরিদ্র মানুষগুলোর।
সারাদেশে বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষেরা করোনা মোকাবেলায় রীতিমতো যুদ্ধ চালাচ্ছে।

মাগুরায় এক শ্রেণির দরিদ্র লোক রয়েছে যারা নদীতে খেয়াঘাটে টাকার বিনিময়ে নদীপথে খেয়া নৌকা চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করে থাকে। এই খেয়াঘাটের মাঝিদের সংখ্যাটা হয়তো বেশি না। কিন্তু দুর্ভোগ তাদেরও কম নয়। এপার ওপারের মানুষকে যাতায়াতের জন্য এই মাঝিরাই পারাপারের জন্য সহযোগিতা করে থাকে। কিন্তু করোনা ভাইরাসের কারনে দুর দুরান্তের লোকগুলোকে পারাপারের জন্য তেমন চোখে পড়ছে না। ফলে আয়ের পরিমাণ কমে গেছে।

মাগুরার নবগঙ্গা নদীর এলাকা ঘুরে সরোজিনে কয়েকজন মাঝিদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, তারা চাই এই দুঃসময়ে সরকারের সহযোগিতা। পাশাপাশি ব্যাক্তিগত উদ্দ্যোগেও ত্রাণ সহায়তা ও নগদ অর্থ। যা দিয়ে তারা অন্তত দুবেলা খাবারের ব্যবস্থাটা করতে পারেন।

কুদ্দুস নামের একজন খেয়াঘাটের মাঝি জানান, করোনা প্রাদুর্ভাবের আগে প্রতিদিন খেয়া চালিয়ে আয় হতো ২’শ টাকার মত। কিন্তু এখনতো ১শ টাকাও আয় করতে পারছিনা। সরকার এবং সমাজের বিত্তবান ব্যাক্তিরা তাদের সহযোগিতার জন্য আলাদাভাবে নজর দিলে হয়তো তারা উপকৃত হবে বলেও জানান তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *