মাগুরা শ্রীপুরে ইউ,পি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ইউএনও’র কাছে অনাস্থা প্রস্তাব দাখিল

শ্রীপুর

মাগুরা সংবাদ :

আশরাফ হোসেন পল্টু,শ্রীপুর,মাগুরা:


মাগুরার শ্রীপুর উপজেলার ৫নং দারিয়াপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাকির হোসেন কাননের বিরুদ্ধে আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে শ্রীপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ ইয়াছিন কবীরের কাছে ঔই ইউনিয়নের ১০জন নির্বাচিত ইউপি মেম্বর অনাস্থা প্রস্তাব দিয়েছেন ।
লিখিত অনাস্থা প্রস্তাবে জানা যায়, উপজেলার ৫ নং দারিয়াপুর ইউ,পি’র ১০জন সদস্য চেয়ারম্যান জাকির হোসেন কাননের বিরুদ্ধে ৮টি অভিযোগ প্রস্তাব আনেন। অভিযোগগুলি হচ্ছে ট্যাক্সের টাকা থেকে সম্মানী ভাতা না দিয়ে নিজে আত্মসাৎ, মাসিক সভা না করা, টিআর, কাবিখা, চল্লিশ দিনের কর্মসূচি, এডিবি ইত্যাদি প্রকল্পের তালিকা সভা না করে নিজে দেওয়া, এলজিএসপি’র কাজ না করে টাকা আত্মসাৎ, বয়স্ক, বিধবা, পঙ্গু, গর্ভকালীন ভাতা সদস্যদের মাধ্যমে না দিয়ে টাকার বিনিময়ে নিজে দেওয়া, ইউনিয়ন পরিষদের সকল কাজ কোন সভা না করেই নিজে সিদ্ধান্ত নেওয়া, টাকার বিনিময়ে বয়স্ক ভাতার কার্ড সমাজের বিত্তবানদের মাঝে প্রদান করা ও সদস্যবৃন্দের সাথে অসদাচরণ, ভয়ভীতি প্রদর্শন করে নিজে সহি সম্পাদন করানো।
অনাস্থা প্রস্তাবে স্বাক্ষরকারীরা হলেন,ইউপি সদস্য মোঃ লাভলু বিশ্বাস, মোঃ নবুয়ত আলী, মোঃ মোফাজ্জেল হোসেন, মোঃ বিল্লাল হোসেন মোল্যা, মোঃ জামাল বিশ্বাস, মোঃ ইলিয়াস কাঞ্চন, হামজা, মোঃ আবু সাইদ, মোঃ নওশের আলী শেখ ও মমতা সমাদ্দার।
এ বিষয়ে চেয়ারম্যান জাকির হোসেন কানন বলেন, অনাস্থার বিষয়টি আমি শুনেছি। তবে তাদের অভিযোগগুলি সঠিক নয়। আমি বিভিন্ন ভাতার কার্ড বিতরণের পূর্বে মাইকিং করে ইউএনও মহোদয় এবং ট্যাগ অফিসারের উপস্থিতিতে তৈরি করেছি। এছাড়াও অন্য সব অভিযোগগুলিও মিথ্যা। আমি নিজের জীবনকে বাজি রেখে জাতির এ ক্রান্তিলগ্নে স্বেচ্ছাসেবকদের নিয়ে রাত-দিন মানুষের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছি।
বিষয়টি নিয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ ইয়াছিন কবীরের সাথে কথা বললে, তিনি সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ইউপি সদস্যদের অনাস্থা প্রস্তাবের কপি গ্রহণ করা হয়েছে। অফিস খোলার পর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *