জাতিসংঘে শুভেচ্ছা দূত হিসেবে বক্তব্য রেখেছেন মাগুরার সাকিব

খেলাধুলা

মাগুরা সংবাদঃ

বাংলাদেশের অল রাউন্ডার সাকিব আল হাসান বেশ কয়েকবছর ধরেই ইউনিসেফের শুভেচ্ছা দূত হিসাবে কাজ করছে। গতকাল ২৬ সেপ্টেম্বর জাতিসঘের অধিবেশন চলাকালে ইউনিসেফের সভায় বক্তব্য রাখেন। সাকিব আল হাসানের বক্তব্যের সময় অন্যান্য সরকার প্রধানদের সাথে বাংলাদেশ সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উপস্থিত ছিলেন।

জানা যায় অনেকেই জানত না যে ইউনিসেফের তরফ থেকে জাতিসংঘে সাকিব আল হাসান যোগ দিতে যাচ্ছেন। জাতিসংঘের কোনো সভায় যোগ দিতে পারাকে অত্যন্ত গর্বের বিষয় উল্লেখ করে টাইগারদের এই বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার বলেন, বাংলাদেশকে এমন একটি পর্যায়ে প্রতিনিধিত্ব করার সুযোগ আসলে আমি খুবই বিশেষ কিছু অনুভব করি।  

ক্যারারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (সিপিএল) খেলতে ইতোমধ্যে দেশ ছেড়েছেন বাংলাদেশ টেস্ট ও টি-২০ অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। জাতিসংঘের সভা শেষ করে করে তিনি সিপিএল খেলতে যাবেন। যেকোন দেশের প্রেক্ষাপটে রাষ্ট্রনায়ক ব্যতিত কোন ব্যক্তি জাতিসংঘে বক্তব্য রাখা বিশেষ সম্মানের। সাকিব আল হাসান বাংলাদেশের জন্য এপর্যন্ত অনেক সম্মান বয়ে এনেছেন।

১৯৮৭ সালে মাগুরায় জন্মগ্রহণ করা সাকিব আল হাসান মাগুরা থেকে এখন সমস্ত বিশ্বের সামনে এক নামে পরিচিত। ২০০৬ সালে বাংলাদেশ জাতীয় দলে জিম্বাবুয়ের বিপরীতে প্রথম খেলার সুযোগ পান। তার পর থেকে একদিন, টি-২০, টেস্ট সর্বত্রই সাকিব আল হাসান এক ভাবে খেলে চলছেন।

সূত্রে প্রাপ্ত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *