মাগুরা জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটি নিয়ে অসন্তোষ, নেতাদের ক্ষোভ!

মাগুরা সদর

মাগুরা সংবাদঃ

দেশের বিভিন্ন জেলা পর্যায়ের পুরনো কমিটি ভেঙে নতুন কমিটি গঠন করছে বিএনপি। এর অংশ হিসেবে মাগুরা জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। কিন্তু কমিটিতে অযোগ্যদের স্থান দেয়ায় তা নিয়ে অসন্তোষ ও ক্ষোভের সঞ্চার হয়েছে জেলা বিএনপির নেতাদের মধ্যে।

জানা গেছে, সোমবার (২৬ আগস্ট) রাতে বিএনপির সহ-দফতর সম্পাদক মুহম্মদ মুনির হোসেনের সই করা এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে আহ্বায়ক কমিটি সংক্রান্ত এ তথ্য জানানো হয়। এরপরেই তা নিয়ে স্থানীয় নেতাদের মধ্যে বিরূপ প্রতিক্রিয়া দেখা দেয়।
আলী আহমেদকে আহ্বায়ক ও আখতার হোসেনকে সদস্য সচিব করে মাগুরা জেলা বিএনপির ৩৩ সদস্যের আহ্বায়ক কমিটির অনুমোদন দিয়েছে হাইকমান্ড। এর প্রেক্ষিতে অভিযোগ উঠেছে, আলী আহমেদ ও আখতার হোসেনকে নিয়ে যে ৩৩ সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়েছে তাতে অধিকাংশ নেতাই অযোগ্য ও হাইব্রিড। কেন্দ্রীয় নেতাদের সঙ্গে লবিং করে তারা কমিটিতে পদ পেয়েছেন।

এ প্রসঙ্গে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক মাগুরা জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটিতে জায়গা না পাওয়া একজন নেতা বলেন, বিগত কমিটিতে আমি ছিলাম। সেখানে যেসব অযোগ্য নেতা বিভিন্ন পদে ছিলেন তাদের এবারের কমিটিতে পদ পাওয়ার কথা নয়। কিন্তু তারাই জেলা কমিটির গুরুত্বপূর্ণ পদ পেয়েছেন। যারা যোগ্য ছিলেন তাদের সরিয়ে দেয়া হয়েছে। আমি নিজেকে যোগ্য বলে দাবি করছি না। কিন্তু প্রকৃতপক্ষে যারা যোগ্য তাদেরও তো পদ দেয়া হয়নি।

তিনি আরও বলেন, বিষয়টি যোগ্য নেতাদের জন্য লজ্জার। সারা দেশে বিএনপির যখন বেহাল অবস্থা, তখন সে অবস্থা থেকে উত্তরণের জন্য সর্বোচ্চ চেষ্টা না করে অযোগ্যদের দিয়ে কমিটি গঠন করে দলের অবস্থা আরও শোচনীয় করা হচ্ছে। বিগত একযুগে দলের কঠিন সময়েও যাদের দলের পাশে পাওয়া যায়নি তাদের অনেককেই এ কমিটিতে স্থান দেয়া হয়েছে। আমরা এর তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

প্রসঙ্গত, এ অভিযোগ শুধু মাগুরা জেলা বিএনপির কমিটি নিয়ে নয়, বরং সারা দেশে নতুন কমিটি দেয়ার ক্ষেত্রে একই অভিযোগ উঠছে। প্রতিটি কমিটিরই পদবঞ্চিত নেতারা বলছেন, কমিটিতে যোগ্য নেতাদের স্থান দেয়া হয়নি। যা বিএনপির বিভেদকে আরও প্রকট করে তুলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *