ডিসি ঘুমান রাজার পালঙ্কে:বিষয়টি তদন্ত হওয়া প্রয়োজন বললেন,মাগুরার সাবেক ডিসি

মাগুরা সদর

মাগুরা সংবাদঃ

মাগুরার ডিসি ঘুমান রাজা সীতারামের ৩শ’ বছরের পুরনো পালঙ্কে! বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশিত এমন খবরে ব্যাপক তোলপাড়ের সৃষ্টি হয়েছে। তবে এ খবরকে অস্বীকার করে জেলা প্রশাসক আলী আকবর বলেন,রাজার পালঙ্কে ঘুমানোর জন্য নয়,পালঙ্কটি নষ্ট হয়ে যাচ্ছিল। তাই আমি মেরামত ও রং করিয়েছি।’একটি অনলাইন নিউজ পোর্টালের সংবাদ মারফত জানা যায়,পালঙ্কটি কেন জাদুঘরে পাঠানো হয়নি, প্রশ্নের উত্তরে জেলা প্রশাসক বলেন, ‘আমার আগের জেলা প্রশাসক প্রত্নতত্ত্ব অধিদফতরকে এটি গ্রহণ করার জন্য লিখিতভাবে জানিয়েছিলেন। কিন্তু এখনও পর্যন্ত তারা এটি গ্রহণ করেনি। এই মূল্যবান সম্পত্তি প্রত্নতত্ত্ব বিভাগ গ্রহণ না করলে, আমি কি সেটা রাস্তায় ফেলে দেবো? জেলা প্রশাসক হিসেবে সম্পদটি সযত্নে সংরক্ষণের স্বার্থেই আমি আমার দায়িত্ব পালন করছি।’

রাজার পালঙ্কে ঘুমানোর প্রসঙ্গে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘ছাত্রজীবন থেকেই আমার ফ্লোরে ঘুমানোর অভ্যাস। এখনও আমি ফ্লোরেই ঘুমাই। রাজার পালঙ্কে ঘুমানোর প্রশ্নই ওঠে না।’

প্রসঙ্গত, আলী আকবর মাগুরার জেলা প্রশাসক হিসেবে যোগদান করেন গত বছরের অক্টোবর মাসে।এ ব্যাপারে জানতে চাইলে মাগুরার সাবেক জেলা প্রশাসক আতিকুর রহমান (বর্তমানে রেলমন্ত্রীর পিএস হিসেবে কর্মরত) বলেন, ‘আমার সময়ে এই পালঙ্ক ডিসির বাসভবনে ওঠানোর প্রশ্নই আসে না। আমি দায়িত্ব হস্তান্তর করেছি গত বছর অক্টোবরে। আর পত্রিকার খবরে বলা হচ্ছে এটা করা হয়েছে ফেব্রুয়ারিতে। এ ব্যাপারে মাগুরার রেকর্ডরুম শাখার ও ট্রেজারি শাখার কর্মকর্তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করলেই জানা যাবে এটা কখন ও কীভাবে হয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমি জনাব আলী আকবরকে একজন সৎ ও দক্ষ কর্মকর্তা হিসেবেই জানি। তবে এ ব্যাপারে তদন্ত হওয়া প্রয়োজন। তাহলেই বের হবে কেন এটি করা হয়েছে। এখানে ভুল বোঝাবুঝির কোনও অবকাশ নেই।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *